সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় এগিয়ে গোপালগঞ্জের শেখ চয়ন

561

আর মাত্র একদিন পরেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহুল প্রত্যাশীত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯ তম জাতীয় সম্মেলন।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও সভাপতি সাধারন সম্পাদক পদের জন্য প্রায় ৩ শ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জামা দিয়েছেন। এবার যেহেতু সিন্ডিকেট ভেঙ্গে শেখ হাসিনা নিজেই নির্ধারন করবেন শির্ষ দুই পদ সেহেতু হিসাবটা এবার একটু আলাদা হবে । শেষ পর্যন্ত যে কয়েকজন প্রার্থীর নেত্রীর দেওয়া পাঁচ শর্ত পুরন হয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার সকলের প্রিয়মুখ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য ঢাকা কলেজের মেধাবী ও পরিশ্রমী ছাত্রনেতা শেখ মো. চয়ন ।

অন্য সকলের চেয়ে সবদিক দিয়ে এগিয়ে থাকা চয়ন একমাত্র শেখ হাসিনাকে ভরষা মনে করে চেস্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এক প্রশ্নের জবাবে চয়ন বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দায়িত্ব প্রদান করলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে শেখ হাসিনার সৈনিক হিসেবে গড়ে তোলা হবে। তিনি আরও বলেন ছাত্রলীগের একমাত্র অভিভাবক হলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা তার উপর আমার শতভাগ আস্থা আছে তিনি যে সিদ্ধান্ত দিবেন সেটাই মাথা পেতে নিয়ে কাজ শুরু করবো। চয়ন সকলের কাছে দোয়া চান।