সিডনি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

124

সিডনি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গভীর শোক, শ্রদ্ধা ও যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সিডনি শাখা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

জাতির জনকের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার (৩১ আগস্ট) সিডনিতে এক রেস্তোরায় মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শোক দিবসের এই আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগ সিডনি শাখার সভাপতি গাউসুল আজম শাহজাদার সভাপতিত্বে এবং আওয়ামী লীগ সিডনি শাখার সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদ এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও ছিলেন আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়া শাখার সভাপতি মোঃ সিরাজুল হক এবং প্রধান বক্তা সাবিনা আক্তার তুহিন এমপি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়। এরপর ১৫ই অগাস্ট সহ জেলহত্যা ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে যাঁরা শহীদ হয়েছেন তাঁদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। আমন্ত্রিত অতিথি ও অন্যান্য সংগঠনের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখার পরে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ নামক এক ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক ও বেদনার দিন। এই দিনে ঘাতকেরা সপরিবারে হত্যা করেছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ইতিহাসে এই রকম নৃশংস হত্যাকাণ্ডের নজির নেই। এই দিনে বাংলাদেশ হারিয়েছে তার স্থপতিকে, বাংলাদেশিরা হারিয়েছেন তাদের জাতির পিতাকে, বাঙালি হারিয়েছে ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ বাঙালিকে।

বিশেষ অতিথি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘একাত্তরের পরাজিত শক্তি বাঙ্গালি জাতির জনককে হত্যা করলেও তার নীতি ও আদর্শকে মুছে ফেলতে পারেনি। যতদিন বাংলাদেশ ও বাঙালি থাকবে, ততদিন জাতির জনকের নাম এ দেশের লাখো কোটি বাঙালির অন্তরে চির অম্লান হয়ে থাকবে।’

বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে তাঁর ত্যাগ ও তিতিক্ষার দীর্ঘ সংগ্রামী জীবনাদর্শ ধারণ করে ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত এবং শান্তিপূর্ণ-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে সবাইকে আত্ননিয়োগ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মী ছাড়াও বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ, সামাজিক সংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ, স্থানীয় প্রেস এন্ড মিডিয়ার সাংবাদিক, লেখক সহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। পরিশেষে আওয়ামী লীগ সিডনি শাখার সভাপতি গাউসুল আজম শাহজাদা সংগঠনের কর্মী, সহযোগী এবং আমন্ত্রিত অতিথি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন এবং আমিনুল ইসলাম সহ সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।