দুর্বৃত্তের হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতা সদরুল আলমের মৃত্যু

71

দুর্বৃত্তের হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতা সদরুল আলমের  মৃত্যু

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ - Bangladesh Student League

পাবনার ঈশ্বরদীতে প্রতিপক্ষের গুলিতে গুরুতর আহত পাকশি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সদরুল হক পিন্টু (৩২) মারা গেছেন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সোমবার ভোররাত সাড়ে চারটার দিকে সদরুল মারা যান। হাসপাতালে থাকা পাকশীর যুবলীগ কর্মী আলাল হোসেন এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সদরুল হক পিন্টু পাকশি ইউনিয়নের চর-রূপপুর তিনবটতলা গ্রামের আজাদ মালের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাকশীর ছাত্রলীগ কর্মী সৌরভ হোসেনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সদরুলের দ্বন্দ্ব চলছিল। দুই বছর আগে প্রকাশ্যে সৌরভের হাত কেটে দেন সদরুল। এ ঘটনায় সদরুলকে প্রধান আসামি করে ঈশ্বরদী থানায় মামলা হয়। ওই ঘটনার পর থেকে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ওই ঘটনার জের ধরে গতকাল সদরুলের ওপর হামলা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি-ঈশ্বরদী সার্কেল) জহুরুল হক জানান, আহত পিন্টুর কোমড়ে দু’টি গুলি বিদ্ধ হয়। এছাড়াও তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে চাপাতির গুরুতর আঘাত ছিল। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। সুরতাহাল ও ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।