খালেদাকে হেনস্থা ও হয়রানীর জন্যই হাসপাতালে আনা হয়েছে

43

খালেদাকে হেনস্থা ও হয়রানীর জন্যই হাসপাতালে আনা হয়েছে

নিজেকে সাধু দেখানোর জন্য সরকার বেগম জিয়ার চিকিৎসার নামে নাটক করেছে বলে অভিযোগ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর । তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে এনে টানা হেঁচড়া করা হয়েছে শুধুমাত্র হেনস্থা ও হয়রানী করার জন্য। চিকিৎসার নামে পিজি হাসপাতালে নিয়ে আসা প্রহসনেরই নামান্তর। কোন চিকিৎসাই সেখানে তাঁকে দেওয়া হয়নি।

বিকেলে নয়াপল্টনে ব্রিফিংয়ে রিজভী এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আজ হাসপাতালে আনার সময় সম্পূর্ণ অপ্রস্তুতভাবে আনা হয়েছে। কারাগারে তাঁর কক্ষের কাছে গিয়ে বার বার তাগিদ দিতে থাকে কর্মকর্তাসহ ৭/৮ জন কাররক্ষী। একজন মুসলিম ধর্মপ্রাণ নারী হিসেবে ৩০-৩২ বছর ধরে তিনি শাড়ীর উপরে চাদর অথবা ওড়না পরিধান করেন । এ সরকার এত হীন এবং কুৎসিৎ মনোবৃত্তির যে একজন বয়স্ক নারী যিনি তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তাঁকে চাদর অথবা ওড়না পরিধান করার সুযোগ পর্যন্ত দেওয়া হয়নি।তাঁকে একরকম জোর করেই গাড়িতে ওঠিয়ে হাসপাতালে আনা হয়েছে।
দলের এই নেতা বলেন, পিজি হাসপাতালে ৫১২ নম্বর কক্ষে তাঁকে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু চিকিৎসার নামে পিজি হাসপাতালে নিয়ে আসা প্রহসনেরই নামান্তর। কোন চিকিৎসাই সেখানে তাঁকে দেওয়া হয়নি। তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের কোন পরামর্শের সুযোগ দেওয়া হয়নি। আইনেও আছে একজন বন্দী পুর্বে যেসব চিকিৎসকের চিকিৎসা নিতেন কারাগারেও তাদের চিকিৎসা নিতে পারবেন। গত পরশু দিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রেরিত চিঠিতে বলা হয়েছে যে বেগম খালেদা জিয়া ব্যক্তিগত চিকিৎসকের দ্বারা স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে প্রধান কারারক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। অথচ এর কোন প্রতিফলন আজকে দেখা যায়নি।
রিজভীর অভিযোগ, সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে এসে টানা হেঁচড়া করা হয়েছে শুধুমাত্র হেনস্থা ও হয়রানী করার জন্য। দেশনেত্রীর গাড়ি হাসপাতালে এসে পৌঁছলে তাঁকে একরকম টানা হেঁচড়া করে ওপরে উঠানো হয়। গাড়ি থেকে নামার জন্য সিড়ি পর্যন্ত দেওয়া হয়নি। আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর অতিরিক্ত বাড়াবাড়িতে হাসপাতালে ধাক্কা ধাক্কির মতো পরিস্থিতিতে একরকম অপমানজনকভাবে তাঁকে হাসপাতালে ওঠানো-নামানো হয়েছে। একজন মানুষ হিসেবে বেগম জিয়ার যে চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার সেটাকেও হরণ করতে ক্ষমতাতপস্বী সরকারপ্রধান বিষ দাঁত লুকাতে পারছেন না।