আবারও রাজপথে নামার হুঁশিয়ারি; জনকণ্ঠ বর্জনের হুমকি

কোটা বাতিল বিষয়ে এ মাসের মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি করা না হলে আবারও রাজপথে নেমে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ‘ছাত্রসমাজ রাজপথে নামতে চায় না, তারা পড়ালেখা করতে চায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন। আমাদের দাবি এ মাসের মধ্যে কোটা বাতিলের গেজেট প্রকাশ করতে হবে। তা না হলে দাবি আদায়ে আন্দোলনকারীরা রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। নিরাপত্তার বিষয়ে আমরা প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা আমাদের আশ্বস্ত করেছেন যে, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো সাধারণ শিক্ষার্থীকে হয়রানি করা হবে না। কিন্তু কোটা সংস্কার আন্দোলন ও ভিসির বাসভবনে ভাঙচুরের ঘটনায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা করা হয়েছে। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের হয়রানি হওয়ার আশঙ্কা আছে। তাই এক সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষার্থীদের নামে দায়ের করা সকল মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।’

কোটা সংস্কার আন্দোলনকে বিতর্কিত করার চেষ্টা চলছে উল্লেখ করে সংগঠনের অপর আহ্বায়ক নুরুল হক নুর বলেন, ‘দৈনিক ইত্তেফাকের পর গত ২১ এপ্রিল দৈনিক জনকণ্ঠ কোটা আন্দোলন নিয়ে বিভ্রান্তিকর সংবাদ ছাপিয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেল ৫টার মধ্যে দৈনিক জনকণ্ঠ তার প্রকাশিত সংবাদের জন্য দুঃখপ্রকাশ না করলে সারাদেশের সকল ছাত্র সমাজ দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকাকে বর্জন করবে।’

পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে নুরুল হক বলেন, ‘ক্যাম্পাসের পরিবেশ স্বাভাবিক ও সাধারণ ছাত্রদের নিরাপত্তার স্বার্থে আগামী ৩০ এপ্রিল ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে মতবিনিময় সভা করা হয়েছে। দেশের অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও এ কর্মসূচি পালন করা হবে।