সড়কে শৃঙ্খলা থাকলে যানজট হবে না: কাদের

25

এবার সড়কের অবস্থা বেশ ভালো। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের জন্য সড়কপথে কোনো যানজট হবে না। যদি কোনো সমস্যা হয় তবে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাবো।

শনিবার (৯ জুন) সকালে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি’র (বিআরটিএ) কার্যালয়ে সড়কের নানা পরিস্থিতি তুলে ধরে একথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এসময় আসন্ন ঈদ উপলক্ষে সড়কপথে ‍যাতায়াতকারী যাত্রীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে ঢাকা মহানগরীর বাস টার্মিনালগুলোতে ভিজিলেন্স টিম গঠন করেন তিনি।

সড়কে ঈদযাত্রা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ঈদে আপনারা আতঙ্ক ছড়াবেন না। আমি আশ্বস্ত করছি অন্য সময়ের থেকে এবার সড়কের অবস্থা ভালো। ঈদে সড়কে বড় কোনো সমস্যা হবে না। সড়কপথে কোনো যানজট হবে না। ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ের অবস্থা ভালো। ঢাকা-টাঙ্গাইল সড়কে ফোরলেনের কাজ চলছে, ঈদের সামনে এই সড়কের  খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধ আছে।

হাইওয়ে প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এবার হাইওয়েতে অতিরিক্ত পুলিশ থাকবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলে অতিরিক্ত পুলিশের ব্যবস্থা করেছি। ঈদে ঘরমুখো মানুষের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আবারও বলছি ঈদে সড়কে যানজট হবে না।

উল্টোপথে যানবাহন চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করে মন্ত্রী বলেন, আপনারা সজাগ থাকবেন উল্টোপথে যেন কোনো ভিআইপি যাতায়াত না করতে পারে। এটা আমার দায়িত্ব, উল্টোপথে কোনো ভিআইপিকে আমি অ্যালাউ করতে পারি না। ১০ জন ভিআইপির জন্য লাখো মানুষের সমস্যা মেনে নেওয়া হবে না। সবার মানসিকতার পরিবর্তন করে উল্টোপথে না গিয়ে সঠিকপথে যাতায়াত করতে হবে। রং সাইডে কোনো গাড়ি চলবে না।

ব্যাটারিচালিত ও ভারী যানবাহন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ঈদে তিন ব্যাটারিচালিত কোনো যানবাহন মহাসড়কে চলবে না। ভারী যানবাহনও ঈদের তিনদিন বন্ধ থাকবে। ফিটনেসবিহীন গাড়ি হাইওয়েতে চলবে না। এগুলোর কারণে সড়কে প্রাণ ঝরছে। বিআরটিএ নাকে তেল দিয়ে ঘুমায় ফিটনেসবিহীন যানবাহন তারা বন্ধ করে না। বিআরটিএ কয়েকটি লোক দেখানো অভিযান পরিচালনা করে। হাইওয়েতে ফিটনেসবিহীন গাড়ি জটলা তৈরি করতে পারে।