আ. লীগ সাধারণ সম্পাদক কোন গণতন্ত্রের কথা বলছেন: রিজভী

16

আওয়ামী নেতারা কী ভুলে গেছেন সরকারের সমালোচনা করার কারণে গভীর রাতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় ভেঙ্গে তছনছ করে গ্রেপ্তারের কথা। তারা কী ভুলে গেছেন ২০১৩ সালে পুলিশ ঢুকিয়ে সারা কার্যালয় তছনছ করে বিএনপি মহাসচিব ও সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ ১৫৪ জন বিএনপি নেতাকর্মীদের আটক করে নিয়ে যাবার কথা। তাহলে এখন কোন গণতন্ত্রের কথা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলছেন? বললেন বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী।

আজ মঙ্গলবার নয়াপল্টনসস্থ দলীয় কার্যালয়ের সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, সরকারের মন্ত্রীদের ন্যূনতম শিষ্টাচার নেই। আমরা শেখ হাসিনার নাম বলার আগে তার পদবী ব্যবহার করি। কিন্তু সরকারের মন্ত্রীরা বিশেষ করে তথ্যমন্ত্রী যেভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে কথা বলেন তাতে ন্যূনতম শিষ্টাচার আছে বলে বলে মনে হয় না।

রিজভী আরও বলেন, রাজশাহী সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সন্ত্রাসী তাণ্ডব চরম আকার ধারণ করেছে। আজ নগরীর সাগরপাড়ায় জেলা ছাত্রদলের গণসংযোগ কর্মসূচি উদ্বোধনের সময় আওয়ামী দুষ্কৃতকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপি কর্মী স্বপন কর্মকার, বাংলা ভিশনের ব্যুরো প্রধান পরিতোষ চৌধুরী আদিত্যসহ বেশ কয়েকজন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছিলেন, তিন সিটি নির্বাচন খুলনা ও গাজীপুরের মতো হবে। এখন তার বক্তব্যের সেই আলামত ফুটে উঠতে শুরু করেছে। রাজশাহীতে ধানের শীষের প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণায় ককটেল হামলা নির্বাচনী নতুন মডেলের আরেকটি প্রাথমিক পদক্ষেপ। আতঙ্কিত পরিবেশ তৈরি করে ভোটার শূন্য নির্বাচন করতেই এ হামলা। আমি দলের পক্ষ থেকে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের এই ন্যক্কারজনক হামলার তীব্র ধিক্কার, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি অবিলম্বে দুষ্কৃতকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি এবং আহতদের আশু সুস্থতা কামনা করছি।