ফিলিস্তিনের ২০ কোটি ডলার সহায়তা তহবিল বাতিল করলেন ট্রাম্প

16

ফিলিস্তিনের গাজা এবং পশ্চিম তীরের জন্য বরাদ্দ ২০ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি সহায়তা তহবিল বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এখন সেই অর্থ অন্য কোনো খাতে দেয়া হবে।

ট্রাম্প প্রশাসনকে ফিলিস্তিন ‘শান্তিবিরোধী’ হিসেবে অভিযুক্ত করায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডের সহায়তা কর্মসূচি পর্যালোচনার পর ‘প্রেসিডেন্টের নির্দেশনায়’ এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তহবিলের এই অর্থ ‘যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় স্বার্থ অনুসারে ব্যয় নিশ্চিত করতে’ই এই বরাদ্দ বাতিলের সিদ্ধান্ত।

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, এর আগে এই অর্থ পশ্চিম তীর ও গাজায় বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল, কিন্তু এখন ‘অন্য জায়গায় আরো বেশি অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে’ এই অর্থ ব্যয় হবে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপ গাজায় সহায়তা প্রদানকারী আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিলো। হামাস শাসিত গাজায় বেসামরিক মানুষের জীবন হুমকির মুখে রয়েছে। সেখানকার মানবিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির আরও অবনতি হচ্ছে।

এর আগে গত ‍জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্র ‘ইউএন এজেন্সি ফর প্যালেস্টাইনিয়ান রিফিউজিস’কে (ইউএনআরডব্লিউএ) দেয়া তাদের অর্থের সাড়ে ৬ কোটি মার্কিন ডলার আটকে দেয়।

ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্র-ফিলিস্তিন সম্পর্ক বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে। ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পর মার্কিন প্রশাসন ও ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের মধ্যে সম্পর্কের চরম অবনতি ঘটে।

এর ফলে ফিলিস্তিনিরা মনে করছেন, যুক্তরাষ্ট্র আর মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ায় নিরপেক্ষ মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করতে পারবে না।