পদ্মার ভাঙনরোধে সকল ব্যবস্থা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা :এনামুল হক শামীম

19
শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পদ্মার ভাঙন কবলিতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন, এনামুল হক শামীম।
শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পদ্মার ভাঙন কবলিতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন, এনামুল হক শামীম।

আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেছেন, শরীয়তপুরের জাজিরা-নড়িয়া এলাকার পদ্মার ভাঙনরোধে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা করবেন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিয়মিতই ভাঙন কবলিত এলাকার খোঁজ নিচ্ছেন।

তিনি ভাঙন কবলিতদের পাশে আছে বলেই পদ্মা নদীর ডান তীর রক্ষায় স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যেই ১ হাজার ২২২ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। আর একনেকে পাস হওয়া এ প্রকল্পের কাজ পানি কমলেই শুরু করা হবে।

বুধবার সকালে শরীয়তপুরের নড়িয়া শহীদ মিনারে তাঁর মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত বেগম আশ্রাফুন্নেছা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে পদ্মায় ভাঙন কবলিতদের প্রায় সহস্রাধিক লোকের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী প্রদানকালে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যখনই ক্ষমতায় থাকে, হতদরিদ্র ও প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ায়। কেউ না খেয়ে মারা যায় না। বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনা ছাড়া নড়িয়াবাসী কিছুই বোঝেন না। বার বার এ এলাকায় নৌকার প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। সরকার নড়িয়ার পদ্মার ভাঙন কবলিত মানুষের পাশে ছিল, আছে আগামীতেও থাকবে। এছাড়া ভাঙন কবলিতদের নিয়মিত খোঁজখবর নেওয়ার জন্য স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি, প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এনামুল হক শামীম।

জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও নড়িয়া উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান হাজ্বী ওহাব বেপারী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের।

এর আগে তিনি নড়িয়ার ভাঙন কবলিত সাধুরবাজার, ওয়াপদা, চন্ডিপুর, বাঁশতলা, নড়িয়া লঞ্চঘাট, শুরেশ্বর, ঘড়িঘার এলাকা পরিদর্শন করেন।

এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, নড়িয়ার ইউএনও সানজিদা ইয়াসমিন। বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও সংগঠনের সাধারন সম্পাদক এমএ কাইয়ুম, নড়িয়া পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম বাবু রাড়ী, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান জাকির বেপারী, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নাজমা মোস্তফা, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক জহির সিকদার, সৈয়দ হেমায়েত হোসেন, আক্তারুজ্জামান জুয়েল, জেলা পরিষদের সদস্য এনায়েত উল্যাহ মুন্সী, আলমগীর হোসেন, আলী আহম্মেদ কাজী, মিজানুর রহমান আলম, পৌরসভা প্যানেল মেয়র আবু জাফর শেখ, ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার আলী হোসেন, মনির হোসেন সুমন, জাকির গাজী, সাবেক চেয়ারম্যান ইমাম হোসেন দেওয়ান, আওয়ামীলীগ নেতা আদিল মুন্সী, আব্দুস সালাম মাস্টার, নড়িয়া সরকারি কলেজ ছাত্রসংসদের সাবেক ভিপি মামুন মোস্তফা, শ্রমিক লীগ নেতা মালেক বেপারী, পৌরসভা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিপ্লব প্রমূখ ।