হিন্দু এমপি মনোনয়ন দেয়া হলে প্রতিহত করা হবে: ওলামা লীগ

16

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধিক হারে হিন্দু মনোনয়নের চক্রান্ত বন্ধের দাবি জানিয়ে তা প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ।

সংগঠনের সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ আখতার হুসাইন বুখারী বলেছেন, ‘মুসলিম এমপি বাদ দিয়ে ভারতীয় সন্ত্রাসী সংগঠন আরএসএসের এজেন্ট উগ্র হিন্দুদের আসন্ন নির্বাচনে অধিক হারে মনোনয়ন দিয়ে দেশে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস লাগানোর বিএনপির গয়েশ্বরদের চক্রান্ত এদেশবাসী মুসলমানরা মেনে নিবে না। যারা মুসলিমদের বাদ দিয়ে উগ্র হিন্দু এমপি অধিক হারে মনোনয়ন দিবে তাদের আগামী ভোটে বয়কটের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক চক্রান্ত প্রতিহত করবে মুসলমানরা।’

রবিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ওলামা লীগের আয়োজনে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

ওলামা লীগ সভাপতি বলেন, ‘মুসলিম বিদ্বেষী হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠা করতে ভারতের সন্ত্রাসী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) অপতৎরতা চালাচ্ছে। সন্ত্রাসী সংগঠন আরএসএস ৩০ শতাংশ হিন্দু এমপি মনোনয়ন দেয়ার এমপি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে ঢুকানোর জন্য দেনদরবার করছে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নালিশকারী আরএসএস এজেন্ট রানা দাশ গং এই অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আরএসএস’র এই এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে বিএনপির গয়েশ্বর গং।’

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘বাংলাদেশে অবস্থান করে ইতিমধ্যে এদেশে গরু কোরবানি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে হিন্দু বৌদ্ধ খিস্ট্রান নামের সাম্প্রদায়িক পরিষদ। এসব মুসলিমবিদ্বেষী হিন্দু এমপি হলে ভারতের মতো বাংলাদেশেও গরু কোরবানি করলে ঘর থেকে বের করে নিয়ে মুসলমানদের পিঠিয়ে হত্যা করবে। জাতিগত দাঙ্গা লাগিয়ে মুসলিমদের পাকিস্তান যেতে বলবে। গয়েশ্বর, সুনীল শুভ, পংকজদের চক্রান্ত রুখে দেয়া হবে।’

পবিত্র দ্বীন ইসলাম অবমাননাকর “জান্নাত” নামক সিনেমা নিষিদ্ধের দাবি জানিয়ে তারা বলেন, ‘জান্নাত নামক সিনেমার প্রযোজক-পরিচালক, নায়ক-নায়িকাদের গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে। ৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশে মুসলমানদের স্পর্শকাতর ধর্মীয় অনুভূতি সম্পন্ন “জান্নাত” নামক সিনেমা তৈরি করে অমার্জনীয় গর্হিত অপরাধ করেছে এস এস মাল্টিমিডিয়া। এর আগে জাজ মাল্টিমিডিয়াও দ্বীন ইসলামের অবমাননাকর সিনেমা তৈরি করেছে।’

‘ইনুর চক্রান্তে বাংলাদেশ ভারত যৌথ সিনেমা চালুর পর থেকে দ্বীন ইসলামের অবমাননাকর সিনেমা তৈরি হচ্ছে। এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা দ্বীন ইসলাম বিদ্বেষীদের যেকোন ষড়যন্ত্র প্রতিহত করবে। সারাদেশে এই কুখ্যাত সিনেমা অবিলম্বে বন্ধ না করলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাওলানা মুহম্মদ আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সম্মিলিত ইসলামী গবেষণা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুহম্মদ আব্দুস সাত্তার, সহ-সভাপতি মাওলানা মুহম্মদ শোয়েব আহমেদ গোপালগঞ্জী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল জলিল, মাওলানা মুহম্মদ শওকত আলী শেখ ছিলিমপুরী, ওলামা লীগের দফতর সম্পাদক মুফতি মাসুম বিল্লাহ নাফেয়ী প্রমুখ।