আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে: নোয়াখালীতে ফখরুল

আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন এখন গণশত্রু: ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মধ্য দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। এ ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়ার মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে।

নির্বাচনী সহিংসতায় নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার নারীকে দেখতে যাওয়ার পথে শনিবার সকাল ১০টার দিকে কুমিল্লা বিশ্বরোডে জমজম হোটেলে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনের দিন এবং এরপরের সহিংসতার মধ্য দিয়ে গোটা বাংলাদেশে একটা সহিংস ত্রাস এবং নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করা হয়েছে। জনগণের কাছে আমরা আহ্বান জানাচ্ছি এই সহিংসতা প্রতিরোধের। বিশেষ করে নির্বাচন কমিশনকে আমরা বলেছি এই সহিংসতা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করতে।

তিনি বলেন, আমরা দেখেছি নোয়াখালীতে আমাদের একজন বোন ধর্ষিত হয়েছেন। আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছি এবং সারাদেশে সর্বত্র যে সহিংসতা হয়েছে, তার নিন্দা জানাচ্ছি।
এই সফরে ফখরুলের সঙ্গে একই গাড়িতে রয়েছেন নোয়াখালীর ওই আসনে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য, দলের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব।

নোয়াখালীর পথে শনিবার সকালে ঢাকায় দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয় থেকে রওনা হন বিএনপি মহাসচিবসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

কৃষক, শ্রমিক, জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, হারুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, কেন্দ্রীয় নেতা রেহানা আখতার রানু, সৈয়দ আসিফা আশরাফী পাপিয়া এই সফরে রয়েছেন।