মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিবার পরিচিতি

99

ডোনাল্ড ট্রাম্প
ডোনাল্ড জন ট্রাম্প ১৪ জুন ১৯৪৬ সালে নিউ ইয়র্ক শহরের কুইন্সে জন্মগ্রহণ করে। এখন তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম রাষ্ট্রপতি।এছাড়াও তিনি একজন ধনাঢ্য ব্যবসায়ী, বিনিয়োগকারী, বিশিষ্ট সামাজিক ব্যক্তিত্ব, লেখক হিসেবে আলোচিত। তিনি দ্য ট্রাম্প অর্গানাইজেশ্যানের পরিচালক এবং ট্রাম্প এন্টারটেইনম্যান্ট রিসোর্টের প্রতিষ্ঠাতা। ট্রাম্প নিউ ইয়র্ক শহরের স্থানীয় বাসিন্দা ফ্রেড ট্রাম্পের ছেলে। রিয়েল এস্টেট ব্যবসাকে নিজের কর্মজীবন হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে তাঁর পিতার যথেষ্ট অনুপ্রেরণা ছিল। ট্রাম্প পেন্সিল্‌ভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় অধীন হোয়ারটন স্কুলে অধ্যয়নের সময় তাঁর পিতার ‘এলিজাবেথ ট্রাম্প এন্ড সান’ প্রতিষ্ঠানে কাজ করতেন। পরবর্তীতে ১৯৬৮ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনের পর তিনি তাঁর পিতার প্রতিষ্ঠানের হাল ধরেন। ১৯৭১ সালে ট্রাম্প তাঁর পিতার প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণভার গ্রহণ করেন এবং প্রতিষ্ঠানটির নাম পরিবর্তন করে ”দ্য ট্রাম্প অর্গানাইজেশ্যান” রাখেন।

মেলানিয়া ট্রাম্প

মেলানিয়া ট্রাম্প
মেলানিয়া ট্রাম্প

মেলানিয়া ট্রাম্প ১৯৭০ সালের ২৬ এপ্রিল  পূর্ব ইউরোপের স্লোভেনিয়ায় জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি  ৯০ দশকের একজন জনপ্রিয় মডেল। অবশ্য তখন তার নামের সঙ্গে ট্রাম্প ছিল না। ১৯৯৭ সালে কাজের ভিসা পাওয়ার আগে অভিবাসী হিসেবেই প্রথম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পা রাখেন মেলানিয়া। নিউ ইয়র্কে একটি ফ্যাশন শোয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার আলাপ হয়। ডোনাল্ড ট্রাম্পের তৃতীয় পত্নী তিনি। ট্রাম্পের সঙ্গে মেলানিয়ার বিয়ে হয় ২০০৫ সালে।

ডোনাল্ড জন ট্রাম্প জুনিয়র

ডোনাল্ড জন ট্রাম্প জুনিয়র
ডোনাল্ড জন ট্রাম্প জুনিয়র

ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম পক্ষের স্ত্রী ইভানা ট্রাম্পের সন্তান। ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় ছেলে। স্ত্রী সাবেক মডেল বেনেসা কে হেডন। তাদের পাঁচ সন্তান রয়েছে। বাবা প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর তিনিই ‘ট্রাম্প অর্গানাইজেশন’ এর হর্তাকর্তা হবেন। তাকে সাহায্য করবেন ছোট ভাই এরিক ট্রাম্প।

এরিক ট্রাম্প

এরিক ট্রাম্প
এরিক ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম পক্ষের সন্তান। স্ত্রী টেলিভিশন প্রযোজক লারা ইউনাস্কা। বড় ভাইয়ের সঙ্গে ‘ট্রাম্প অর্গানাইজেশন’ এর কাজকর্ম দেখভাল করেন।

ইভাঙ্কা ট্রাম্প

ইভাঙ্কা ট্রাম্প
ইভাঙ্কা ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম পক্ষের মেয়ে। এককালে মডেলিং করলেও ব্যবসায়ী জ্যারেড কুশনারকে বিয়ের পর ঘর সংসারে মন দিয়েছেন। স্বামীর মতো তিনিও ইহুদি ধর্মাবলম্বী। ফ্যাশন জগতের প্রতি টান রয়েছে।

জ্যারেড কুশনার

জ্যারেড কুশনার
জ্যারেড কুশনার

জোনাল্ড ট্রাম্পের বড় মেয়ে ইভাঙ্কার স্বামী। নিউ জার্সিতে জন্ম হলেও এককালে হিটলারের গণহত্যার শিকার হয়েছিল তার পরিবার। হার্ভার্ড এবং নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি থেকে আইন নিয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি। কর ফাঁকির দায়ে বাবা গ্রেপ্তার হওয়ার পর কুশনারই পারিবারিক আবাসন ব্যবসা সামলান। ‘নিউ ইয়র্ক অবজার্ভার’ নামের একটি খবরের কাগজও চালান তিনি। ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা নিয়োগ হওয়ার পর এখন সে সব থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখতে চান।

মারলা অ্যান ম্যাপল্স
৫৩ বছর বয়সী ম্যাপল্স ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় স্ত্রী। এককালে মডেল ও অভিনেত্রী ছিলেন। এখন গান লেখেন।

টিফানি ট্রাম্প

টিফানি ট্রাম্প
টিফানি ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় পক্ষের মেয়ে। বয়স ২৩। কলেজ পেরিয়ে সবে ইউনিভার্সিটিতে পা রেখেছেন।