আদালতের ক্ষমতা

148

আদালতের ক্ষমতা
ধারা ২৮। দন্ডবিধির অধীনে অপরাধ:

এই কার্যবিধির অন্যান্য বিধান সাপেক্ষে দন্ডবিধিতে বর্ণিত যেকোন অপরাধের বিচারঃ

(ক) হাইকোর্ট বিভাগ, অথবা

(খ) দায়রা আদালত, অথবা

(গ) অন্য কোন আদালত, যে আদালত এইরূপ অপরাধের বিচার করিতে পারেন বলিয়া দ্বিতীয় তফসিলের অষ্টম কলামে দেখান হইয়াছে, করিতে পারেন।

ধারা ৩১। হাইকোর্ট ও দায়রা জজ যে দন্ড দিতে পারেন:

(১) হাইকোর্ট বিভাগ আইনে অনুমোদিত যেকোন দন্ড দিতে পারেন।

(২) দায়রা জজ অথবা অতিরিক্ত দায়রা জজ আইনে অনুমোদিত যেকোন দন্ড দিতে পারেন; তবে এইরূপ কোন জজ মৃত্যুদন্ড দিলে তাহা হাইকোর্টের অনুমোদন সাপেক্ষ হইবে।

(৩) সহকারী দায়রা জজ মৃত্যুদন্ড অথবা দশ বৎসরের অধিক কারাদন্ড ব্যতীত আইনে অনুমোদিত যেকোন দন্ড দিতে পারেন।

(৪) যেই সহকারী দায়রা জজ ৯ ধারায় (৩) উপধারার বিধান অনুযায়ী অতিরিক্ত দায়রা জজ রূপে নিয়োজিত হইয়অছেন বলিয়া গণ্য হন, তিনি মৃত্যুদন্ড ব্যতীত আইনে অনুমোদিত দন্ড দিতে পারেন।

ধারা ৩২। ম্যাজিস্ট্রেটগণ যে দন্ড দিতে পারেন:

(১) ম্যাজিস্ট্রেটগণের আদালতসমূহ নিম্নলিখিত দন্ড দিতে পারেন; যথা:

(ক) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এবং প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত: আইনে অনুমোদিত পরিমাণ নিঃসঙ্গ  অবরোধসহ পাঁচ বৎসরের অনধিক কারাদন্ড; দশ হাজার টাকার অনধিক জরিমানা; বেত্রাদন্ড।

(খ) দ্বিতীয় শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট আদালত: আইনে অনুমোদিত পরিমাণ নিঃসঙ্গ অবরোধসহ তিন বৎসরের অনধিক কারাদন্ড; পাঁচ হাজার টাকার অনধিক জরিমানা।

(গ) তৃতীয় শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত: দুই বৎসরের অনধিক কারাদন্ড; দুই হাজার টাকার অনধিক জরিমানা।

(২) যেকোন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত আইন দ্বারা যেই সকল দন্ডদানের ক্ষমতা লাভ করিয়াছেন, সেই সকল দন্ডের মধ্যে একটির সহিত অপরটি যুক্ত যেকোন আইনসঙ্গত দন্ড দিতে পারেন।

ধারা ৩৩। জরিমানা অনাদায়ে ম্যাজিস্ট্রেটগণের কারাদন্ড দেওয়ার ক্ষমতা। কয়েকটি ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম :

(১) ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত, জরিমানা অনাদায়ে এইরূপ অনাদায়ের ক্ষেত্রে আইনে অনুমোদিত পরিমাণ কারাদন্ড দিতে পারেন।

তবে শর্ত থাকে যে :

(ক) কারাদন্ডের মেয়াদ এই কার্যবিধি অনুসারে ম্যাজিস্ট্রেটের ক্ষমতার বাহিরে হইবে না;

(খ) ম্যাজিস্ট্রেট যেই মামলার বিচার করিবেন, তাহাতে মূল দন্ডের অংশ হিসাবে কারাদন্ড দেওয়া হইয়া থাকিলে জরিমানা অনাদায়ে যেই কারাদন্ড দেওয়া হইবে তাহার মোয়াদ ম্যাজিস্ট্রেট উক্ত অপরাধের জন্য জরিমানা অনাদায়ে কারাদন্ড হিসাবে ব্যতীত অন্যভাবে যেই কারাদন্ড দিতে পারেন তাহার এক-চতুর্থাংশের অধিক হইবে না।

(২) ৩২ ধারা অনুসারে ম্যাজিস্ট্রেট যে সর্বাধিক মেয়াদের মূল কারাদন্ড দিতে পারেন, তাহার সহিত এই ধারা অনুসারে প্রদত্ত কারাদন্ড যোগ করা যাইতে পারে।

ধারা ৩৩-ক। ২৯-গ ধারাবলে বিশেষ ক্ষমতাপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত, মৃত্যুদন্ড বা সাত বৎসরের অধিক কারাদন্ড বাযাবজ্জীবন কারাদন্ড ব্যতীত আইনে অনুমোদিত যেকোন দন্ড দিতে পারেন।

ধারা ৩৬। ম্যাজিস্ট্রেটগণের সাধারণ ক্ষমতা:

সমস্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবং প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেটগণের উপর যথাক্রমে অর্পিত তৃতীয় তফসীলে বর্ণিত ক্ষমতা থাকিবে। এইরূপ ক্ষমতা তাহাদের “সাধারণ ক্ষমতা” নামে অভিহিত।

ধারা ৩৭। ম্যাজিস্ট্রেটগণের উপর যেই সকল অতিরিক্ত ক্ষমতা অর্পণ করা যাইতে পারে:

ক্ষেত্রবিশেষ সরকার অথবা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট যেকোন উপজেলা ম্যাজিস্ট্রেট অথবা প্রথম, দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেটকে তাহার সাধারণ ক্ষমতা ব্যতীতও চতুর্থ তফসীলে বর্ণিত সেই সকল ক্ষমতা প্রদত্ত হইতে পারে সেই সকল ক্ষমতা তাহাকে দিতে পারেন। তথ্যসূত্রঃঅনলাইনঢাকা