জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে করা মামলায় খালাস পেয়েছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।বিগত সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০৭ সালে দুর্নীতি দমন কমিশন বাহাউদ্দিন নাছিমের বিরুদ্ধে এই মামলা করে।  রায় ঘোষণাকালে বাহাউদ্দিন নাছিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাহাউদ্দিন নাছিম সাংবাদিকদের বলেন, আসলে এটি একটি পেটি মামলা।আদালত মামলায় কিছু পায়নি বলেই খালাসের রায় দিয়েছে।

Kbd A F M Bahauddin Nasim MP - কৃষিবিদ আ. ফ. ম বাহাউদ্দিন (নাছিম) এমপি

A F M Bahauddin Nasim MP – আ. ফ. ম বাহাউদ্দিন (নাছিম) এমপি

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৭ সালের ৯ জুলাই নাছিমকে সম্পদের হিসাব দাখিলের নোটিস দিয়েছিল দুদক। ১৭ জুলাই নাছিম তার মা নূর জাহান বেগমের মাধ্যমে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিল করেন।

দাখিল করা বিবরণীতে নাছিম নিজের ও স্ত্রী সুলতানা শামীমা চৌধুরীর নামে ২ কোটি ৭ লাখ ৬৬৮ টাকার সম্পদ থাকার কথা জানান। কিন্তু ওই হিসাবে গড়মিল রয়েছে অভিযোগ করে ২০০৭ সালের ২১ নভেম্বর  রাজধানীর রমনা থানায় নাছিম ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করেন দুদকের উপ-পরিচালক বেনজীর আহম্মদ।

মামলাটি তদন্তাধীন অবস্থায় বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২০০৮ সালে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন বাহাউদ্দিন নাছিম। ওই আবেদনের চূড়ান্ত শুনানি শেষে ২০১১ সালের ১৩ এপ্রিল বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ মামলা বাতিল করে রায় দেন।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ৪ মার্চ আপিল দায়ের করে দুদক। ২৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্য নিয়ে আজ আদালত এ রায় ঘোষণা করলেন।

প্রসঙ্গত, বিগত সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় বহু ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা দায়ের করা হয়। যার অনেকগুলো পরে ‘রাজনৈতিকভাবে হয়রানিমূলক’ বিবেচনায় বাতিল হয়ে যায়।

 
প্রকাশক: সালেহ মোহাম্মদ রশীদ অলক
সম্পাদকঃ মাহসাব হোসাইন রনি
বার্তাকক্ষঃ ০১৭১১-৪৬০৬০১ | ই-মেইলঃ news.politicsnews24@gmail.com
 
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি