অনলাইনে ট্রেনের টিকেট করবেন যেভাবে

0
181

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট করবেন যেভাবে

অনলাইনে টিকেট করতে আপনার যা যা লাগবেঃ

১) একটি ইমেল একাউন্ট

২) আপনার জাতীয়তা সনদ

৩) অনলাইন ব্যাংকিং চালু আছে এমন ব্যাংক একাউন্ট

৪) ভিসা, মাষ্টার কার্ড, ডিবিবিএল নেক্সাস কার্ড, ব্রেক ব্যাংক এটিএমকার্ড

৫) নেট সংযোগ

৬) সাধারণ ধারণা

বাংলাদেশ রেলওয়ে যাত্রীদের জন্য নিয়ে এল অনলাইনে টিকিট কেনার সুবিধা। যাদের ভিসা কাড, মাস্টার কার্ড (ডেবিট কার্ড ও ক্রেডিট কাড) আছে তারা এ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। একটি কার্ডের অধীনে সর্বোচ্চ ৪ টি টিকিট কিনা যাবে। এ সেবা পেতে হলে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। পরবর্তীতে যখন টিকিট দরকার হবে এ রেজিস্ট্রেশনের তথ্য ব্যবহার করে টিকিট কাটা যাবে। যাত্রার তিন দিন আগে এ টিকিট ক্রয় করা যাবে। তবে শুরুতে মাত্র ১০% টিকিট এ ব্যবস্থায় পাওয়া যাবে। অর্থাৎ মোট টিকিটের সংখ্যা ৩০০ হলে ৩০টি টিকিট অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে। এর আগে কর্তৃপক্ষ মোবাইলে টিকিট কেনার ব্যবস্থা চালু করলেও টিকিট স্বল্পতা আর নিয়মকানুন না জানার কারণে তা সাধারণ যাত্রীদের তেমন সুবিধা দিতে পারেনি। এ ব্যবস্থাকে জনপ্রিয় করতে হলে তাই টিকিটের সংখ্যা আরো বাড়াতে হবে। না হয় এর সুবিধাও জনগণ পাবে না কখনো।

কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করবেনঃ

রেজিস্ট্রেশনটি হল আপনার তথ্যাদি দিয়ে অনলাইনে টিকিট কাটার জন্য নিবন্ধিত হওয়ার প্রক্রিয়া। এটি একবার করলে সবসময় সেটা দিয়ে কাজ চালানো যাবে। তাই বারবার করতে হবে না। কাজটি করার জন্য আপনার একটি ব্যক্তিগত E-mail Address লাগবে। রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নিচের নিদের্শনাগুলো দেখুন।

প্রথমে http://www.esheba.cnsbd.com লিংকটিতে যান। যে পেজ আসবে তাতে Sign up বাটনে ক্লিক করুন।

 ফরমে আপনার নাম, E-mail Adress, পাসওয়ার্ড, ঠিকানা, ফোন নাম্বার (এরিয়া কোড সহ), মোবাইল নম্বর ক্যাপচা (এলোমেলো লেখা) পূরণ করুন।

বিঃদ্রঃ এই E-mail Address টিতে আপনাকে টিকিটের Confirmation পাঠানো হবে। তাই ব্যক্তিগত E-mail Address টিই ব্যবহার করুন। আবার মোবাইল নং টিও গুরুত্বপূর্ণ। টিকিট সংগ্রহ করার সময় এ নাম্বারটি লাগবে। তাই নিজের মোবাইল নংটিই ব্যবহার করুন। মোবাইল নং ও ফোন নাম্বারের মাঝখানে কোন চিহ্ন দেয়া যাবে না, অতিরিক্ত নাম্বারও বসানো যাবে না। যে ঘরগুলোতে লাল তরকা চিহ্ন আছে সে ঘরগুলো অবশ্যই পূরণ করতে হবে। বাকিগুলো পূরণ না করলেও চলবে। যেমন ঠিকানা আর ফোন নাম্বার। আর তথ্যগুলো যত্ন সহকারে মনে রাখবেন। না হয় নতুনভাবে আবার রেজিস্ট্রেশন করতে হতে পারে।

সবগুলো ঘর পূরণ করা হয়ে গেলে REGISTER বাটনে ক্লিক করুন। যদি আপনার তথ্যগুলো দেয়াতে কোন ভুল থাকে তাহলে এ ফর্মটি সামনে এগুবে না।

যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে Please check your email for validation link লেখা মেসেজ পাবেন।

আপনার মেইলে এড্রেসে (যেটি রেজিস্ট্রেশন ফরমে দিয়েছেন) একটি মেসেজ যাবে।

মেসেজটি খুলোন। ওখানে একটি লিংক পাবেন।

লিংকটিতে একবার ক্লিক করুন। আপনাকে রেলেওয়ের ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে। আপনার রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শেষ। নিচের মত নিশ্চিত মেসেজ পাবেন।

টিকিট কাটবেন যেভাবেঃ

১। টিকিট কাটার জন্য http://www.esheba.cnsbd.com/ এ যান। নিচের মত পেজ আসবে। নিচের মত রেজিস্ট্রেশনের তথ্যগুলো ব্যবহার করে Log in/Sign in বাটনে ক্লিক করুন।

২। যে পেজ আসবে তাতে Purchase Ticket বাটনে ক্লিক করুন। নিচের মত পেজ আসবে। ফরমে আপনার যাত্রার তারিখ, কোন স্টেশন থেকে যাবেন, কোন স্টেশনে যাবেন, ট্রেনের নাম, টিকিটের ক্লস, যাত্রী সংখ্যা পূরণ করে SEARCE করে দেখুন টিকিট আছে কিনা।

যদি টিকিক না থাকে তাহলে লাল লেখার মেসেজ পাবেন। দুঃখের বিষয় হলো বেশিরভাগ সময় ওটাই পাবেন।

৩। যদি টিকিট থাকে তাহলে তাহলে ডেভিট/ক্রেডিট কার্ডের কজটি করতে হবে এবং আপনার মেইলে টিকিট বরাদ্দের নিশ্চিত মেসেজ যাবে। ওটি প্রিন্ট করে রেলওয়ে স্টেশনের নির্দিষ্ট ই-বুথ এ গেলে আপনার টিকিটটি পেয়ে যাবেন। সাথে লাগবে আপনার মোবাইল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here