ইসির সঙ্গে বৈঠকে বিএনপির ৮ নেতা , ভোটের ৭ দিন পূর্বে সেনা মোতায়েনের দাবি

0
109

গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচন নিয়ে আলোচনা করতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) গেছে বিএনপি নেতারা। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের নেতৃত্বে আট সদস্যের প্রতিনিধি দল মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে ইসিতে যান।

বৈঠক থেকে গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের ৭ দিনে পূর্বে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। একই সঙ্গে গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদকে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবিও জানায় নির্বাচনে সরকারি দলের সঙ্গে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী দলটি। দলীয় প্রতীকে এই দুই সিটিতে ভোট হবে আগামী ১৫ মে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সোহরাওয়ারার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে না পাওয়ার বিষয়টি ছাড়াও সিটি ও জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে বিএনপির নানা দাবি নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে আলোচনা করবে বিএনপি। আগামী ১৫ মে গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটকে সামনে রেখে এরই মধ্যে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বিএনপি গাজীপুরে হাসান উদ্দিন সরকার এবং খুলনায় নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে প্রার্থী করেছে।

ঈদের পর আরও তিন সিটি করপোরেশন সিলেট, রাজশাহী এবং বরিশালে নির্বাচন হবে। সিটি নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলেও আগামী ডিসেম্বর বা জানুয়ারির জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে এমন ঘোষণা এখনও আসেনি।

মঙ্গলবারের বৈঠকে নির্বাচনের আগে বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে মামলা প্রত্যাহার এবং গ্রেপ্তার না করার বিষয়েও সিইসির প্রতি আহ্বান জানাবে বিএনপি।

প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন- স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ এবং ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গত বছরের ২০ অক্টোবর বর্তমান নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়েছিল বিএনপি। সিইসির সঙ্গে সংলাপে বিএনপি ২০ দফা দাবি তুলে ধরেছিল।