খালেদাকে ভেতরে বাইরে হসপিটালে বিদেশে রাখলেও সরকারের বিপদ

44

‘বেগম খালেদা জিয়াকে ভেতরে রাখলেও বিপদ, বাইরে রাখলেও বিপদ, তাকে হসপিটালে নিলেও বিপদ, কারাগারে নিলেও বিপদ, বিদেশে পাঠাতে চাইলেও বিপদ, এ জন্য সরকার ফাঁপরে আছে।’এমন মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব কথা বলেন তিনি।‘বর্তমান প্রেক্ষাপট, মানবাধিকার, আইনের শাসন ও গণতন্ত্র’শীর্ষক এই আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদ।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে কঠিন আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আর আন্দোলন আপনারা এত সহজে করতে পারবেন না। যদি নির্বাচনের তিন মাস আগে আন্দোলন করতে চান তাহলে কি কঠিন আন্দোলন করতে পারবেন? পারবেন না। কারণ তার তিন মাস পরে তো নির্বাচন, সরকার যদি নির্বাচন দেয়, তখন আপনারা নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন, আন্দোলন করবেন কীভাবে ? আন্দোলন করতে হলে আগে থেকেই করতে হয়।’

দেশের আইনের পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘গাজীপুর-খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হবে, সেখানে সরকার এমপি-মন্ত্রী পাঠাবে, সেটাই আইন। আমাদের দেশে কেয়ারটেকার সরকার ছিল না, তারপর কেয়ারটেকার হলো, আবার চলে গেল, আসা-যাওয়ার মধ্যেই তো আইন। যারা ক্ষমতায় আছে, তারা নিজেদের মতো করে সবকিছু বদলাতে পারে, এটাই আইন। বর্তমানে আওয়ামী লীগের যিনি আছেন, তিনি এক ব্যক্তির শাসক, তিনি যেটা করবেন সেটাই আইন, সমস্ত প্রশংসা তার প্রাপ্য আর আমরা তার চামচামি করে বেড়াবো, এটাই আইন।’

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান কৃষিবিদ অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে মহাসচিব অধ্যাপক আ স ম মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, ঢাকা মহানগর সভাপতি ফরিদ উদ্দিন, কৃষিবিদ সুমন, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ বক্তৃতা করেন।